• রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৫:৪১ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]

লাইভে থাকা সাংবাদিকের বু’ম কেড়ে নেওয়া পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

Reporter Name / ৬৭ Time View
Update : সোমবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২২
লাইভে থাকা সাংবাদিকের বু'ম কেড়ে নেওয়া পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার
লাইভে থাকা সাংবাদিকের বু'ম কেড়ে নেওয়া পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

লাইভে থাকা সাংবাদিকের বু’ম কেড়ে নেওয়া পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

লাইভ সংবাদ পরিবেশনের সময় পুলিশের হাতে হেনস্তার শিকার হয়েছেন বাংলাদেশের অন্যতম টিভি নাগরিক টিভির সাংবাদিক।

রোববার দুপুরে জাতীয় সংসদ এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি যদিও নাগরিক টিভির অফিসিয়াল ফেসবুক

পেইজে ভিডিওসহ পোস্ট করা হয়েছে সেখানে দেখা গিয়েছে সাংবাদিককে পূর্ণ গলায় এখান থেকে সরে যাওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

এ ঘটনার অভিযোগ পাওয়ার পর হেনস্তাকারী পুলিশ সদস্যকে শনাক্ত করে প্রত্যাহার করা হয়েছে। খুব দ্রুতই ঘটনাটির তদন্ত করা হয়েছে বলে জানান তারা। সংযুক্ত করা হয়েছে পুলিশ লাইনে। পুলিশ কনস্টেবল বিষয়টি নিয়ে অন্যরকম উৎপন্ন হলে তাকে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। ডিএমপি জানিয়েছে, সংসদ সদস্যদের পদত্যাগ বিষয়ে লাইভ সম্প্রচার করার সময় ডিএমপির প্রতিরক্ষা বিভাগের কনস্টেবল মো. শাহিনুর রহমান নাগরিক টেলিভিশনের রিপোর্টারের হাত থেকে বু’ম কেড়ে নিয়ে দায়িত্ব পালনে বিঘ্ন ঘটান। বিষয়টি ভিডিওতে আরো ভালোভাবে লক্ষ্য করলে দেখা যায় সাংবাদিক লাইভে থাকাকালীন তার হাত থেকে ভুম কেড়ে নেন।আর এই বিষয়টি নাগরিক টিভির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে প্রকাশিত হলে সেখানে বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন মতামত প্রকাশ করেন। সেখানে বেশিরভাগ মানুষ পুলিশের বিপক্ষেই কথা বলছেন। অতঃপর বিষয়টি বিএনপিকে জানালে তারা যথাসম্ভব দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

এ বিষয়ে হেনস্তার শিকার নাগরিক টেলিভিশনের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক সাঈদ আরমান জানান, জাতীয় সংসদ

এলাকায় গিয়েছিলাম সংবাদ সংগ্রহ করতে। লাইভ এর স্থান নির্ধারিত পুলিশের সঙ্গেই করেছিলাম অতঃপর

লাইভে যাওয়ার পরে পুলিশের এক সদস্য এসে আমার সাথে যে ব্যবহার করেছে তা আপনার ভিডিওতে দেখতেই পেয়েছেন।

বিষয়টি ডিএমপি কমিশনার মহোদয়কে অবহিত করা হলে তিনি কনস্টেবল কে অপেশাদার আচরণ করায় তার বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। অভিযুক্ত কনস্টেবল শাহিনুর রহমানকে পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন। ডিএমপি কমিশনারের এই ব্যবস্থা গ্রহণে সবাই মত পোষণ করেছেন পুলিশের এ ধরনের ব্যবহারে পারছেন না নিয়মিত সাংবাদিকেরা সত্য ঘটনাগুলো তুলে ধরতে।

কনস্টেবল শাহিনুর রহমানকে পুলিশ সংযুক্ত করার পরে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথাজানিয়েছেন

ডিএমপি কমিশনার মহোদয়। সংবাদটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ায় হয়তো ব্যবস্থার দ্রুত গ্রহণ করা হয়েছে তবে এ ধরনের

কাজ যেন পরবর্তীতে না হয় সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে বলা হয়েছে। দেশের সকল সংবাদ প্রচারে সাংবাদিকদের কোন

বাধা দেওয়ার নিয়ম থাকে না সেখানে লাইভে থাকাকালীন তার হাত থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নেওয়াটা সত্যিই অন্যায়ের দিক থেকে নেতিবাচক হয় না।

লাইভে থাকা সাংবাদিকের বু’ম কেড়ে নেওয়া পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category